বুক রিভিউঃ দ্য হাজব্যান্ড
লিখেছেন নাসরিন সিমা, মার্চ 1, 2018 7:54 অপরাহ্ণ

লেখকঃ ডিন কুন্টজ
অনুবাদঃ বদরুল মিল্লাত
প্রচ্ছদঃ প্রান্ত ঘোষ দস্তিদার
মুদ্রিত মূল্যঃ ৩০০ টাকা
বিক্রিত মানঃ আন্তর্জাতিক বেস্টসেলার
জিনিয়াস পাবলিকেশন্স

বইয়ের প্রচ্ছদে আর নামে এক ধরনের টান শুরুতেই উল্লেখযোগ্য। কিছুই বাদ না দিয়ে একটানা পড়ে যাওয়ার মতো। অনুবাদ ঝরঝরে, পড়তে নিয়ে বইটা যে অনুদিত মনে হচ্ছে না।গল্পটা একজন মালীর, ক্ষুদ্র আয়ের মালী মিচেল রাফের্টি। অভিজাত এলাকার কয়েকটি বাগানে কাজ করে।সহকর্মী ইগীর সাথে বেশ ভালো সম্পর্ক। গল্প,খু…সুটি চলে কাজের মাঝেই। ইগি রেগুলার বারে যায়, ড্রিংক করে। মিচেলকেও যাবার জন্য প্ররোচনা দেয়।

মিচেল রাফের্টি সাফ জানিয়ে দেয়,বারে যাওয়া তিনবছর আগেই সে ছেড়ে দিয়েছে। ইগী অবাক হয়, সুন্দরী বার ডান্সারদের বর্ণনা দেয়ার চেষ্টা করে। মিচেল বিরক্ত হয়। সে বিয়ের পরে বারে যাওয়া ছেড়ে দিয়েছে। আর তার সেই সৌভাগ্যবতী স্ত্রীর নাম হলি। সুখের সংসার তাদের। ওরা যখন একসাথে সময় কাটায় তখন ওদে সিনেমা দেখার প্রয়োজন হয় না, গল্প করেই কাটিয়ে দিতে পারে অনেকটা সময়।মিচেল যখন বাগানে কাজ করছে তখন ফোন আসে বাড়ি থেকে হলির ফোন, ব্যাথায় কাতর সে কন্ঠ তখনো ভালোবাসার কথা বলছে। মিচেল আকস্মিকতা কাটিয়ে না উঠতেই অপরিচিত কেউ দুই মিলিয়ন ডলার দাবী করে হলিকে অপহরন করে নিয়ে যায়।

কুকুরের চেইন ধরে হেটে যাওয়া এক লোককে খু… করে অপহরণকারী। আর সেটা মিচেল রাফের্টির সাথে ফোনে কথা বলতে বলতেই। অসহায় রাফের্টি বুঝতে পারে না দরিদ্র এই মালির কাছে দুই মিলিয়ন ডলার দাবী করা কতটা যৌক্তিক।ঘটনা এগিয়ে চলে কুকুর নিয়ে যাওয়া লোকটি খু… হয়েছে জানিয়ে পুলিশকে আসতে বলে মিচ। স্ত্রীর অপহরণের কথা বলতে পারে না কারণ অপহরণকারী এই বলে সতর্ক করে দেয় পুলিশ জানলে হলি জীবিত থাকবে না। এদিকে পুলিশ মিচেলকে সন্দেহের তালিকায় ফেলে দেয় এবার আসুন জেনে নিই মিচ কিভাবে তার স্ত্রীকে রক্ষা করলো…….

উহু সেটা জানতে এবার বইটা পড়ে নিতে হবে যে।

 
Facebook Comments
পোস্টটি ৬৫১ বার পঠিত
 ০ টি লাইক
০ টি মন্তব্য

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Facebook Comment