প্রত্যাবর্তন
লিখেছেন লাল নীল বেগুনী, মার্চ 22, 2015 9:33 অপরাহ্ণ

কিছু কিছু বাচ্চা আছে যাদেরকে দেখলেই মনে হয় মাখনের ডিব্বাটাকে একটু আদর করি। প্রচণ্ড কষ্টে চোখ ভরা জল নিয়ে এদের কীর্তিকলাপ হা করে তাকিয়ে দেখতে দেখতে কখন যে মুখ হাসি হাসি হয়ে যায় টেরও পাওয়া যায় না। সম্ভবত এরকম একটা মুহূর্তেই  আমার ফারিহার সাথে প্রথম দেখা হয়েছিল। আমার দূর সম্পর্কের বোন।শত মানুষের ভীড়ের মাঝেও মনে রাখার মত একটা মুখ ফারিহা।

এই তো গেল প্রথম দেখা। শেষ দেখা হয়েছিল ওরই বড় বোনের বিয়েতে। সব সময়ের মতই চঞ্চলতা ওকে ঘিরে রেখেছিল। যেহেতু ফারিহার অন্যান্য বোনেরা ওর থেকে অনেক বড় তাই ওকে নিয়ে স্বপ্নের পরিমাণ সবারই হয়তো একটু বেশীই। গত রাতের আগের রাতে ফারিহা যখন যন্ত্রণায় ছটফট করছিল। তখন আমি সম্ভবত প্রিয় একটা গল্পের বইয়ের জগতে বিভোর হয়ে ছিলাম।

ফজরের একটু আগ দিয়ে আম্মু হঠাৎ ডেকে বলল,”ফারিহা মারা গেছে, পিজিতে আছে এখনও, তুই যাবি আমার সাথে?”

গত বছর ক্যান্সার নিয়েই ফারিহা পি.এস.সি পরীক্ষা দিয়েছিল। লাস্ট একটা থেরাপি দিলে রোগ নিরাময়ের সম্ভাবনার কথা আমাদের সবার মুখে আশার আলো ছড়িয়েছিল। যা বলছিলাম, আম্মু আর আমি আজানের পর পিজিতে গিয়েছিলাম। কিন্তু, তার কিছুক্ষন আগেই ওকে নিয়ে গ্রামের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে যাওয়ায় আমাদের সাথে আর ওর দেখা হয় নি। মানে, ওর লাশ আর দেখতে পারিনি।

পৃথিবীতে সবার আদর, ভালবাসা সব রেখে ফারিহা একা একা চলে গেল। ফারিহা আর কারো কাছে খুব শখের কোন জিনিসের জন্য আবদার করবে না। বাসার সবাইকে প্রাণবন্ত করে রাখবে না। ফারিহার খুব শখের সেই মূল্যবান জিনিসটা হয়তো এমনিতেই পড়ে থাকবে। স্বাভাবিক! যত প্রিয় জিনিসই হোক মারা যাবার সময় তো আমরা কিছুই নিয়ে যেতে পারি না। শুধু কর্মফল আমাদের সাথে থাকে। ভাল-খারাপ প্রত্যেকটা কাজের ফল যায় আমাদের সাথে।

ফারিহা মারা যাবার পর মনের ভেতর খুব বেশী অশান্তি লাগছে। ওর মৃত্যুর পর থেকে মনের ভিতর কে যেন রেকর্ড বাজাচ্ছেঃ
“তুমি প্রস্তুত? আজরাইল আসলে কনফিডেন্টলি যেতে পারবা? বিন্দু বিন্দু পাপ মিলে বিশাল আকার ধারণ করেনি তো? পারফেক্ট মুসলিম হবার সর্বোচ্চ চেষ্টা করতেছ তো? মনে রাইখো তোমার প্রত্যেকটা কাজ কিন্তু রেকর্ডেড।”

নিশ্চয়ই প্রত্যেক প্রাণীকে মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হবে।

নিশ্চয়ই প্রত্যেক প্রাণীকে মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হবে।

 

Facebook Comments
পোস্টটি ১৭০২ বার পঠিত
 ১ টি লাইক
২ টি মন্তব্য
২ টি মন্তব্য করা হয়েছে
  1. ”সবচেয়ে যে শেষে এসেছিলো, সেই গিয়েছে সবার আগে চলে
    ছোট্ট যে জন ছিলো যে সব চেয়ে
    সে ই গিয়েছে সকল শূণ্য করে”

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Facebook Comment